1. admin@bongojournal24.com : admin :
শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
দুর্গাপুর-কলমাকান্দায় এমপি রুহীর আয়োজনে প্রথমবার বসছে কৃষক আনন্দ মেলা একাধিক মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার দুর্গাপুরে ডা: তানজিরুল ইসলাম রায়হান এর উদ্যোগে সুসজ্জিত করা হলো শিশু ওয়ার্ড পলাশবাড়ী স্বেচ্ছা ব্লাড ফাইটার্স এর উদ্যোগে সুবিধা বঞ্চিত মানুষের মাঝে গরুর মাংস বিতরণ উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পারভীন আক্তার এর মতবিনিময় রায়পুরে স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন নবদিগন্তের ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠান  দুর্গাপুরে এতিম ও অসহায় শিশুদের ঈদ উপহার বিজয়নগরে প্রেসক্লাবের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত কলমাকান্দায় পিকআপ-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১ লক্ষ্মীপুরে প্রবাসীর বাড়িতে হামলা ভাঙচুরসহ প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ

কৃষকের আস্থা উপসহকারি কৃষি অফিসার এস এম মেজবা উল আলম

বঙ্গ জার্নাল
  • আপডেট সময় : শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২৩
  • ২৬৪ বার পঠিত

 

নিজস্ব প্রতিবেদক/বঙ্গ জার্নাল

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলা কৃষি অফিসারের কার্যালয়ে কর্মরত উপসহকারী কৃষি অফিসার এস এম মেজবা উল আলম চৌধুরী মাঠ পর্যায়ে কৃষক কে কৃষি সেবা প্রদান কালে তাকে অনেক কৃষকেই “কৃষি ভাই “বলে ডাকতে শোনাযায় এবং তিনি বর্তমানে মাঠে ময়দানে “কৃষি ভাই ” হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন। কৃষকের আস্থা অর্জনে তিনি সক্ষম হয়েছেন।

জানা যায় তিনি উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নের দায়িত্ব গ্রহনের পর ইউনিয়নের সার্বিকভাবে কৃষি বিপ্লব ঘটেছে, তার কর্মদক্ষতায় ইউনিয়নের কৃষি খাতে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

এ’কর্মকর্তাকে কৃষি মাঠে সার্বক্ষণিক বিচরণ করতে দেখা যায়, সে দিন রাত দায়িত্বপ্রাপ্ত এলাকার কৃষকদের সার্বক্ষণিক সরাসরি ও মোবাইল ফোনে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন বলে এলাকার অনেকেই জানিয়েছেন।

তিনি উপসহকারী কৃষি অফিসারের দায়িত্বের পাশাপাশি রাষ্ট্রিয় বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে, দেখা গেছে তিনি বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক টিসিবি পূণ্য বিক্রয়ের ট্যাগ অফিসারের দায়িত্ব গুরুত্ব সহকারে পালন করছেন এর পাশাপাশি দায়িত্বপূর্ণ ধর্মঘর হরষপুর বরতুলি এলাকার সার কীটনাশকের দোকানে নিয়মিত মনিটরিং করছেন,সরকারের ন্যায্যমূল্যে চাউল বিক্রয়ের কার্যক্রম গুরুত্ব সহকারে নিয়মিত ট্যাগ অফিসারের দায়িত্বও পালন করছেন বলে এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন ধর্মঘর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফারুক আহমেদ পারুল।

উপসহকারী কৃষি অফিসার এস এম মেজবা উল আলম চৌধুরীর সাথে আলাপকালে তিনি জানান- তিনি গত ২০২২ সালের ৬ই ডিসেম্বর ধর্মঘর ইউনিয়নের ধর্মঘর ব্লকের মূল দায়িত্ব গ্রহণ করেন পাশাপাশি একই ইউনিয়নের আহম্মদপুর ও আমবাড়িয়া ব্লকের দায়িত্বও পালন করে যাচ্ছেন।

এ কৃষি কর্মকর্তা আরো জানিয়েছেন- চাকরি হিসেবে নয়, তিনি আন্তরিকতা ও দায়িত্ববোধ থেকে কাজ করেন। কৃষি ও কৃষকের উন্নতি এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সুনাম বাড়াতে চেষ্টা করেন। এসব কাজ করে কৃষকদের কাছে ভালোবাসা ও সম্মান কুড়িয়েছেন তিনি। তার নিকট সেবাপ্রাপ্ত কৃষকরা অনেকেই ভালোবেসে তাকে কৃষি ভাই বলে ডাকেন।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা