1. admin@bongojournal24.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০২:২৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক আরও গভীর করতে ৭টি নতুন সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ শিক্ষার্থীদের সোনার মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে হবে : এমপি রুহী দুর্গাপুরে এমপি রুহীর ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় কিশোর কিশোরীদের সচেতন করতে দুর্গাপুরে কৈশোর মেলা বাংলাদেশ ভুটান থেকে জলবিদ্যুৎ আমদানি করতে আগ্রহী : প্রধানমন্ত্রী দুর্গাপুরে একযোগে ৭টি উন্নয়ন কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন এমপি রুহী আমার প্রত্যেকটা কাজ,ব্যতিব্যস্ততা আপনাদের জন্য : জনসাধারণের প্রতি এমপি রুহী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রেস সচিব হলেন নাঈমুল ইসলাম খান মানিকগঞ্জে দুই উপজেলায় মোটরসাইকেল প্রতিকের জয়জয়কার

দুর্গাপুরে সরিষা চাষের বেড়েছে আবাদ, বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

বঙ্গ জার্নাল
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ১২ জানুয়ারি, ২০২৪
  • ৫৩ বার পঠিত

 

পলাশ সাহা || দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) 

নেত্রকোণা দুর্গাপুরে এবার অন্যান্য বারের তুলনায় সরিষার আবাদ হয়েছে সবচেয়ে বেশি। আবহাওয়া ভালো থাকায় এবার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখছেন চাষিরা। উপজেলায় এবার জমির পর জমিতে সরিষার আবাদ দেখা গেছে।

গত ২০২২-২০২৩ অর্থবছরে ৩২০ হেক্টরে সরিষার আবদ হয়েছিল। এ বছর প্রায় ৫শত হেক্টরে সরিষার আবাদ করা হয়েছে। গত বছরের তুলনায় এ বছর প্রায় ১শত হেক্টর বেশি জমিতে সরিষা উৎপাদিত হবে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে,উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের বারমারি, ভবানীপুর, কুল্লাগড়া ইউনিয়নের বিজয়পুর, বামনপাড়া, কাকড়াকান্দা, গাওকান্দিয়া ইউনিয়নের জাগিরপাড়া, নাওদাড়া চন্ডিগড় ইউনিয়নের নোয়াগাও, ফুলপুর, কেরণখলা, ফেঁচিয়া গ্রামের কৃষকরা সরিষা আবাদ করেছেন।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে,চলতি অর্থবছরে দুর্গাপুর উপজেলার প্রায় সব ইউনিয়নেই ২ হাজার ৫শ জন কৃষককে বিনামূল্যে প্রণোদনার সরিষা বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে। প্রত্যেক কৃষককে ১ কেজি করে সরিষার বীজ, ১০ কেজি করে ডিএপি ও ১০ কেজি করে এমওপি সার প্রদান করা হয়। কৃষি প্রনোদনা দেয়ার কারণে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সরিষার আবাদ বৃদ্ধি পেয়েছে। এ বছর সরিষার ফলনও বেশি হবে বলে আশা করা হচ্ছে। সেইসাথে কৃষক সরিষার ভালো দাম পেয়ে লাভবানও হবেন।

কৃষক হযরত বেপারি বলেন,কৃষি বান্ধব সরকারকে ধন্যবাদ জানাই আমাদের প্রনোদনা দেয়ার জন্য। আমরা বিনামুল্যে সার, বীজ পাওয়ায় সরিষা আবাদে আগ্রহ হয়েছি। শুধু তাই নয়, সামনের মৌসুম থেকে আমাদের এলাকার কৃষকগণ মধু চাষেও আগ্রহ প্রকাশ করবে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মাঠ কর্মকর্তা কামরুজ্জাসান জানান,এ বছর আবহাওয়া সরিষা আবাদের অনুকুলে ছিল। তাই বিভিন্ন এলাকার কৃষকগণ সরিষার আবাদে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। ক্ষেতে পোকা-মাকড়ের আক্রমন হয়নি। প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে সরিষার বাম্পার ফলন হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এ নিয়ে দুর্গাপুর উপজেলা কৃষি অফিসার নিপা বিশ্বাস জানান,এ বছর দুর্গাপুর উপজেলায় প্রায় ৫শত হেক্টরে সরিষার আবাদ করা হয়েছে। গত বছরের তুলনায় এ বছর প্রায় ১শত হেক্টর বেশি জমিতে সরিষা আবাদ করা হয়েছে। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সব সময়ই কৃষকদের পাশে থেকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছে।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা